২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ / ১৮ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি / রাত ১:৫৭

আন্দোলনের ঘোষণা ডিপজলের

ক’দিন আগেই শোনা গিয়েছিল অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজলের অসুস্থতার কথা। জানিয়েছিলেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে সিঙ্গাপুরে যেতে হবে। এরপরই সেখানে পাড়ি জমান তিনি। এখন শারীরিক অবস্থা তুলনামূলক ভালো। গতকাল মঙ্গলবার দেশে ফিরেছেন তিনি। আর দেশে ফিরেই বিদেশি সিনেমার বিরুদ্ধে আন্দোলনের নামার ঘোষণা দিলেন ডিপজল। 

দেশে ফেরার বিষয়টি সামাজিকমাধ্যমে শেয়ার করেছেন ডিপজল নিজেই। তিনি লিখেছেন, ‘ট্রিটমেন্ট শেষ করে দেশে আসছি। আপনাদের দোয়ায় আলহামদুলিল্লাহ, ভালো আছি, সুস্থ আছি।’

শুরু থেকেই বিদেশি সিনেমা আমদানি ও প্রদর্শনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন এই খল অভিনেতা। বিষয়টি নিয়ে নানা সাক্ষাৎকারে কথাও বলেছেন তিনি। তাঁর ভাষ্য, ‘আমাদের চলচ্চিত্রকে ধ্বংস করে দেওয়ার জন্য একটি চক্র উঠেপড়ে লেগেছে। আমরা দেখেছি, হিন্দি সিনেমা মুক্তি দেওয়ার ফলে নেপালের সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি কীভাবে ধ্বংস হয়ে গেছে। দেশটির সমৃদ্ধ সিনেমা হিন্দি সিনেমার কবলে পড়ে বিলীন হয়ে গেছে। আমাদের দেশে যদি একের পর এক হিন্দি সিনেমা চালানো হয়, তাহলে আমাদের চলচ্চিত্রও ধ্বংস হয়ে যাবে। আমাদের নিজস্ব ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি বলতে কিছু থাকবে না।’

প্রসঙ্গত, বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে একই দিনে বাংলাদেশেও মুক্তি পেয়েছে বলিউডের বেশ কিছু সিনেমা। এবার আসছে বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের ‘ডানকি’। এটিও ভারতের সঙ্গে একইদিনে বাংলাদেশে মুক্তি পাবে বলে জানা গেছে।

ডিপজল বলেন, ‘আমি শুরু থেকে বলে আসছি, বিদেশি সিনেমা আমাদের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে ধ্বংস করবে। আমাদের সিনেমা নির্মাণের প্রবণতা কমে যাবে; তাই হচ্ছে। এভাবে চলতে দেওয়া যাবে না। এর বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলনে যেতে হবে। সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন; এখন সবাই নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত। নির্বাচনের পর বিদেশি সিনেমার বিষয়টি নিয়ে আমরা আন্দোলনের ডাক দেব। আমি মনে করি, এর একটি সুরাহা হওয়া খুব জরুরি।’