৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ / ২২শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি / রাত ১:২৭

ইতালিতে বাংলা মিউজিক ভেনিস এর বর্ণাঢ্য বৈশাখী মেলা ও ঈদ পুনর্মিলনী সম্পন্ন

ইতালিতে বাংলা মিউজিক ভেনিস এর বর্ণাঢ্য বৈশাখী মেলা ও ঈদ পুনর্মিলনী সম্পন্ন

শাইখ আহমেদ, আন্তর্জাতিক প্রতিনিধিঃ

বর্ণাঢ্য আয়োজন আর জাঁকজমকের মধ্যে দিয়ে জলকন্যা খ্যাত ইতালির ভেনিস নগরীতে বাংলা মিউজিক ভেনিস এর উদ্যোগে বৈশাখী মেলা, ঈদ পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৩০ এপ্রিল ২০২৩ রবিবার স্থানীয় সময় বিকালে ভেনিসে অবস্থিত মারঘেরা এম্মের পার্কে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় স্থানীয় সামাজিক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সহ বিপুল সংখ্যক বিভিন্ন শ্রেণী পেশার বাংলাদশি প্রবাসীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলা মিউজিক ভেনিসের সভাপতি আজাদ খান এর পরিচালনায় এবং ভেনিস বাংলা স্কুলের সাধারন সম্পাদক ও বাংলা মিউজিক ভেনিসের সম্মানিত সদস্য সোহেলা আক্তার বিপ্লবী এবং বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও বাংলা মিউজিক ভেনিসের সম্মানিত উপদেষ্টা শাইখ আহমেদ এর যৌথ প্রানবন্ত উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে উদ্ভোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভেনিস মারঘেরা মিউনিসিপ্যালিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট মাছিমিলিআনো স্কারপা। শুভেচ্ছা বক্তব্যে তিনি বাংলাদেশি প্রবাসীদের প্রশংসা করে আগামীতে এই ধরনের আয়োজনের লক্ষ্যে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবেন বলে আশ্বস্ত করেন। এছাড়াও অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ভেনিস বাংলা স্কুলের সভাপতি সৈয়দ কামরুল সরোয়ার এবং মুক্তির আলো এসোসিয়েশনের উদ্যোক্তা হাসনাহেনা মমতাজ ডালিয়া।

প্রজন্ম থেকে প্রজন্মাতরে বাংলাদেশি প্রবাসীদের আবহমান বাংলার কৃষ্টি ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে ধরে রাখতেই মূলত এই আয়োজন।
এই আয়োজনে ছিল বাংলাদেশি প্রবাসীদের হরেক রকমের স্টল। স্টলগুলোতে আগত দর্শনার্থীর উপচে পড়া ভিড় ছিল লক্ষ্যণীয়।

বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা পরিবেশনায় ছিলেন বাংলা মিউজিক ভেনিস, ভেনিস বাংলা স্কুল এবং মুক্তির আলো এসোসিয়েশন।
এতে লন্ডন সহ ইতালির বিভিন্ন স্থান থেকে আগত শিল্পীরা নৃত্য ও গান পরিবেশেন করেন।

উপস্থিত আগত প্রবাসী দর্শনার্থীরা বলেন বৈশাখের রঙ, ভালবাসার রঙ, লোকজ ভাবনা, বাংলার ঐতিহ্য ও আনুষ্ঠানিকতায় একে অপরের সান্নিধ্যে শ্রদ্ধা, ভালোবাসা বিনিময়ের মাধ্যমে সকলের হৃদয়-মন ভরে উঠেছে এক আনন্দের জয়গানে।