২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / ১৯শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি / সন্ধ্যা ৬:৩৭

এলেঙ্গা-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক চার লেন হচ্ছে

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত প্রায় ১৪ কিলোমিটার সড়ক চার লেন করার কাজ চলছে। এরই মধ্যে মাটি ভরাটসহ বিভিন্ন অংশের ৯টি কালভার্টের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। চলছে ব্রিজ ও ফ্লাইওভারের কাজ। নির্মাণকাজ চলায় এই সড়কে প্রায়ই যানজট লেগে থাকে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করার আশ্বাস ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের। 

উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণাঞ্চলের একাংশের মানুষের চলাচলের প্রবেশপথ ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক। ৭০ কিলোমিটারের এই মহাসড়কে চন্দ্রা থেকে এলেঙ্গা পর্যন্ত ৫৬ কিলোমিটারে চার লেনের সুবিধা রয়েছে। তবে এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত সাড়ে ১৩ কিলোমিটার সড়ক দুই লেনের। এই সড়কে চলাচলকারীদের যানজটসহ নানা ভোগান্তিতে পড়তে হয়। প্রায়ই ঘটে দুর্ঘটনা, ঘটে প্রাণহানি।

ভোগান্তি কমাতে এই ১৩ দশমিক ৬ কিলেমিটার সড়ক চার লেন করা হচ্ছে। যার ব্যয় ব্যয় ধরা হয়েছে ৬০১ কোটি টাকা। ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। প্রকল্পের কাজ শেষ হলে উত্তরবঙ্গসহ ২৩ জেলার মানুষের ভোগান্তি দূর হবে বলে মনে করে চলাচলকারীরা।

এ প্রকল্পে ১টি ফ্লাইওভার, ৮টি ব্রিজ, ১০টি কালভার্ট ও ২টি আন্ডারপাসসহ একটি সার্ভিসলেন নির্মাণ করা হবে। ইতোমধ্যেই মাটি ভরাটসহ ৯টি কালভার্টের কাজ শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আব্দুল মোনেম লিমিটেডের প্রজেক্ট ম্যানেজার রবিউল আওয়াল। 

চলতি বছরের জুন মাসে প্রকল্পের কাজ শেষ করার কথা রয়েছে।