২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / ২১শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি / সকাল ৮:৪১

কমলেশ রায় কল্পবিজ্ঞান কাহিনির দাপুটে লেখক

লেখকের বইয়ের ভুবন

হঠাৎ করেই পৃথিবীর আকাশ থেকে হারিয়ে গেল একটি বিমান। শতাধিক যাত্রীর এই বিমানে সাতটি মহাদেশের মানুষই ছিলেন। এতগুলো মানুষের এভাবে হারিয়ে যাওয়াটা শুধু রহস্যজনকই নয়, বরং আতঙ্কজনক। সারা পৃথিবী তোলপাড় করেও বিমানটির আর কোনো খোঁজ পাওয়া গেল না। কোথায় গেল সেই বিমান? কী রহস্য লুকিয়ে আছে এই হারানো বিমানের আড়ালে? চেনাজানা আমাদের এই পৃথিবীর বাইরে কল্পনার এক অন্য জগতের নাম বিজ্ঞান কল্পকাহিনির জগৎ। সেই জগতের কিছু ঘটনা ও ঘটনার আড়ালে থাকা অজানা বিষয় নিয়ে সময়ের আলোর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক কমলেশ রায়ের কিশোর বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনির সংকলন মানুষখানা।

পাঁচটি কল্পকাহিনিতে বইটি লেখা। মানুষখানা, সুন্দর কীট পতঙ্গ, ফিরোট, কথা বলা বট ও টিকা। বৈচিত্র্যভরা গল্পগুলো সব বয়সি পাঠকের কাছেই ভাল লাগবে। দারুণ উপভোগ্য হওয়ার একটাই কারণ, বিজ্ঞান কল্পকাহিনি মানেই আনন্দময় পাঠের একটি সহজ প্ল্যাটফর্ম। বিজ্ঞানের ডানায় ভর করে কল্পনার রাজ্যে ছুটে চলা! গল্পের পরতে পরতে আছে রোমাঞ্চ, রহস্য ও উত্তেজনা। পাঠকের অনুভূতির শিখরে নিয়ে যাওয়ার মতো একটি বই মানুষখানা। কমলেশ রায়ের সায়েন্স ফিকশন মানেই প্রযুক্তির এক নতুন দিক উন্মোচন । আগেও লেখক বিজ্ঞানভিত্তিক লেখা বইমেলায় বের করেছেন। এবারের বই ‘মানুষখানা’। পাঞ্জেরীর ১৩ নাম্বার প্যাভিলিয়নে বইটি পাওয়া যাচ্ছে। মানুষখানা সায়েন্স ফিকশনের পাঠক যারা তাদের ভাল লাগবে। সায়েন্স ফিকশনটি প্রকাশ করেছে পাঞ্জেরী পাবলিকেশন। প্রচ্ছদ এঁকেছেন প্রসূন হালদার। বইটির মূল্য ২০০ টাকা। 

মানুষখানা বইমেলার পাঞ্জেরীর প্যাভিলিয়নে আছে। রকমারি অনলাইন বুক শপেও পাওয়া যায়।

মারুফ আহমেদ, বিশেষ প্রতিনিধি