১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / ১০ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি / রাত ১০:১২

কয়লা সংকটে আপাতত বন্ধ থাকবে পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্র

জ্বালানি সংকটে ৫ই জুনের পর পটুয়াখালীর পায়রা তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র আপাতত বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

তিনি জানিয়েছেন, কয়লা আমদানি করতে আরও অন্তত ২০ থেকে ২৫ দিন সময় লাগবে।

সাভারের খাগান এলাকায় শনিবার দুপুরে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে নবায়নযোগ্য শক্তি গবেষণা ল্যাবরেটরি ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দিতে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, ‘পায়রা তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রথম ইউনিট বন্ধ আছে এবং দ্বিতীয় ইউনিট আগামী ৫ই জুনের পর বন্ধ হয়ে যাবে। কারণ এখানে কয়লার অভাব দেখা গেছে এবং এটা আসতে ২০-২৫ দিন লেগে যাবে আমাদের। এটা একটা বড় বিষয় কয়লার কারণের জন্য। আমাদের এখানে এলসি খুলতে দেরি হয়েছে। পাশাপাশি অন্যান্য বিষয়গুলোও ছিলো। 

জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী বলেন, সারাদেশে বিদ্যুৎ সংকটের কারণে মানুষ কষ্টে আছে। সরকারের পক্ষ থেকে সংকট সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। বর্তমানে প্রায় দেড় হাজার মেগাওয়াট লোডশেডিং হচ্ছে। এটি কিছুদিন চলবে।

তিনি বলেন, জ্বালানি চাহিদা আগের চেয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে। এ চাহিদা পূরণে নবায়নযোগ্য জ্বালানির দিকে নজর দিচ্ছি আমরা। কৃষি জমি নষ্ট না করে সৌরবিদ্যুৎ তৈরি করতে চাচ্ছে সরকার। উন্নত বিশ্ব থেকে শিক্ষা নিয়ে কাজ করছি।  সমস্যার সমাধান করতে হবে আমাদের দেশের বাস্তবতার আলোকে। 

বিদ্যুৎ জ্বালানি খাতে বেসরকারি খাতের অংশগ্রহণ বাড়ছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী। এসময় সবাইকে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।