২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ / ১৮ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি / রাত ২:০০

পাড়া মহল্লার মানুষের মাঝে আজও আনন্দের খোরাক জোগাচ্ছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য (হাঁডুডু) খেলা ‘

সাঈদ ইবনে হানিফ

আবহমান কাল ধরে গ্রাম বাংলার মানুষের মাঝে একপ্রকার আনন্দের খোরাক জোগীয়ে আসছে ঐতিহ্যবাহী হাডুডু খেলা । সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে পরিবর্তন হয়েছে মানুষের চিন্তা চেতনা – পরিবর্তন হয়েছে প্রকৃতির অনেক নিয়মনীতি । সেই সাথে পরিবর্তন হয়েছে আমাদের ক্রীড়া সাংস্কৃতির ধরণ। আবার কালের আবর্তে হারিয়ে গেছে অনেক কিছু , কিন্তু সেই প্রাচীন কাল থেকে আজ পর্যন্ত ক্রীড়ামোদী মানুষের মাঝ থেকে হারিয়ে যায়নি গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য হাডুডু খেলা ।

প্রতি বছর শীত মৌসুমের শুরুতে অর্থাৎ কাতি, অগ্রায়ণ মাসে বিভিন্ন এলাকায় এবং পাড়া মহল্লায় দেখা এই খেলা । কোথাও মহল্লা ভিত্তিক আবার কোথাও গ্রাম ভিত্তিক এই খেলার আয়োজন হয়ে থাকে । সেখানে নারী পুরুষ সমানে এই খেলা উপভোগ করেন । আগেকার দিনে, দিনের বেলায় এই খেলার আয়োজন হলেও এখন বেশিরভাগ মহল্লায় রাতের বেলায় আয়োজন করা হলেও শত,শত নারী পুরুষ দর্শক আনন্দের সাথে তা উপভোগ করছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত কয়েকদিনে যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় এবং পাড়া মহল্লায় একপ্রকার উৎসব মুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঐতিহ্যবাহী এই হাডুডু খেলা । এরই ধারাবাহিকতায় ৩০ নভেম্বর রাতে উপজেলার ঘোষনগর গ্রামে উত্তর পাড়া – মহল্লাবাসির উদ্যোগে আয়োজন করা হয়, বিবাহিত বনাম অবিবাহিতদের মধ্যে হাডুডু খেলার। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রাত ৯ টার দিকে একপ্রকার উৎসব মুখর পরিবেশে শত,শত নারী পুরুষ খেলা উপভোগ করছেন। এই খেলার সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন, এলাকার বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী সেলিম রেজা সাবু , ব্যাবসায়ী ইসরাইল হোসেন মোল্লা, ইনছার আলী ভুট্টো, তুহিন রেজা, মশিয়ার রহমান, এবং স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ আনিছুর রহমান বিপ্লব । খেলা পরিচালনা করেন, বিশিষ্ট কাঠ ব্যাবসায়ী মোঃ বিল্লাল হোসেন ।