১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / ৭ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি / ভোর ৫:০৬

ব্যালট পেপার বিতরণ শুরু

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণের জন্য ব্যালট পেপার ও অন্যান্য সামগ্রী জেলায় জেলায় পাঠানো শুরু হয়েছে। রাজধানীর তেজগাঁওয়ের সরকারি তিনটি প্রেস থেকে জেলা পর্যায়ে ব্যালট পেপার, পোস্টাল ব্যালট পেপারের সাথে সম্পর্কিত ফরম এবং স্ট্যাম্প প্যাড রিটার্নিং কর্মকর্তাদের মধ্যে বিতরণ করা হচ্ছে। আজ ১৩টি জেলায় এসব সরঞ্জাম পাঠানো হচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে রাজনৈতিক কোনো ঝুঁকির কারণে নয়, বরং ব্যালট পেপার সংক্রান্তঅনেক কাজ থাকার কারণে পর্যাপ্ত নিরাপত্তার সাথে এসব সামগ্রী আগেভাগে পাঠানো হচ্ছে।

দিন যতই যাচ্ছে ততই যেনো দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নিবাচনের প্রস্তুতির তোরজোর বাড়ছে। নিবাচন কমিশনের পক্ষ থেকে  অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্যমূলক করার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় নির্বাচনে ভোটগ্রহণের জন্য ব্যালট পেপারসহ অন্যান্য সরঞ্জাম পাঠানো শুরু করেছে নিবাচন কমিশন। 

রাজধানীর তেজগাঁওয়ের সরকারি তিনটি প্রেস থেকে এসব সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। গভর্নমেন্ট প্রিন্টিং প্রেস থেকে পঞ্চগড়, গাইবান্ধা, মেহেরপুর, কুষ্টিয়া, মাগুরা ও রাঙ্গামাটি। বিজি প্রেস থেকে জয়পুরহাট, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, ঝালকাঠি ও ভোলা এবং সিকিউরিটি প্রিন্টিং প্রেস থেকে বরগুনা, পটুয়াখালী ও নেত্রকোণা জেলার ব্যালট পেপারসহ অন্যন্য নির্বাচনী সরঞ্জাম বিরতণ করা হয় সোমবার। ট্রাক-লরিতে করে এসব সরঞ্জাম বুঝে নিচ্ছে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, জেলা নির্বাচন কমকতা ও পুলিশ। 

ব্যালট পেপার, পোস্টাল ব্যালট পেপারের সঙ্গে সম্পর্কিত ফরম এবং স্ট্যাম্প প্যাডগুলো জেলা প্রশাসকের ট্রেজারিতে রাখা হবে। যা পুলিশের নিরাপত্তায় থাকবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের অতিরিক্ত সহকারী সচিব মোহাম্মদ শাহজালাল।

এর আগে, নির্বাচন কমিশন ভবনের ক্রয় ও মুদ্রণ শাখা থেকে ১৩ জেলার ব্যালটের পাশাপাশি অন্যান্য সরঞ্জামের হিসাব বুঝে নেন সংশ্লিষ্ট কমকতারা।