২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / ২১শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি / সকাল ৯:১৪

যশোরে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদের তীব্র প্রতিবাদ

যশোরে ৬নং বাঘুটিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ তৈয়বুর রহমান কে মিথ্যা ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় জেলে দেওয়ার ঘটনায় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগার এর কেন্দ্রীয় কমিটির তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ।

যশোর জেলার অভয়নগর উপজেলা বাঘুটিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শেখ তৈয়েবুর রহমানকে কে মিথ্যা ষড়যন্ত্র মামলা দিয়ে হয়রানি করে প্রভাব খাটিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন অভয়নগর উপজেলার দুর্নীতিবাজ প্রভাবশালী কিছু রাজনৈতিক নেতা।খোঁজ নিয়ে জানা যায় উক্ত নেতাদের অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে সোচ্চার  হওয়ার কারণে আজ চেয়ারম্যানকে জেল হাজতে পাঠিয়ে তারা বেজায় খুশি।

তার বিরুদ্ধে মামলার বাদীর বাবার কাছে ইলেকট্রনি মিডিয়া সাক্ষাৎকার নিলে তিনি বলছেন চেয়ারম্যান এই মামলায় জড়িত নয়, সে এলাকায় জনপ্রিয় অসহায় গরিবের বন্ধু এবং এছাড়া এই ঘটনা একাধিক পত্র-পত্রিকায়  প্রকাশিত হলেও প্রভাবশালী ষড়যন্ত্রকারীরা তাকে জেল হাজতে প্রেরণ না করা পর্যন্ত খ্যান্ত হয়নি। কিছু করতে না পেরে তাকে বারবার বিএনপি বানানোর চেষ্টা চলছে এবং বিএনপি নেতাদের সাথে তাকে মিথ্যা মামলায় ঢুকিয়ে দেয় তার পরিপ্রেক্ষিতে শেখ তৈয়েবুর রহমান মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহোদয়ের কাছে তিনি যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের টিকিট ধারী সদস্য এবং বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগারের কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য, সেটা দিয়ে আবেদন করেন, তারপর মাননীয় মন্ত্রী তাকে উক্ত মামলা থেকে অব্যহতির জন্য পুলিশ সুপার যশোরকে নির্দেশ দেন।কিন্তু সেটা না দিয়ে তাকে সেই মামলায় গ্রেফতার দেখানো হলো অবাক বিষয়।

উক্ত চেয়ারম্যান ২ বার জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন,এবং তার বাবা একধারে ৩০ বছর চেয়ারম্যান ছিলেন। তার এলাকা সহ অভয়নগর উপজেলায় তার  জনপ্রিয়তা কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে।বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগারের কেন্দ্রীয়  কমিটি সহ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ তার নিঃশর্ত মুক্তি এবং উক্ত মামলা থেকে অব্যাহতির জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ জরুরি  হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।