২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / ২১শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি / সকাল ৭:৪১

যশোরে সহিংসতা নিরসন ও শান্তি স্থাপনে (পিএফবিটি,র) ৩ দিনের আবাসিক প্রশিক্ষণ সম্পন্ন

সাঈদ ইবনে হানিফ ঃ – “শান্তি স্থাপন ও সহিংসতা নিরসনে পিস ফ্যাসিলিটেটর গ্রুপের (পিসএফজি ) সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষে যশোরে ৩ দিনের আবাসিক প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হয়েছে । যশোর আরআরএফ দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ এর MIPS প্রকল্পের আওতায় যশোর( আর,আর এফ) সেন্টারে এই প্রশিক্ষনের আয়োজন করা হয়। প্রশিক্ষনে, খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলায় মানুষের মাঝে সকলক্ষেত্রে সম্প্রীতিপূর্ন আচরণ ও সৌহার্দ্যপূর্ন পরিবেশ গড়ার লক্ষ্যে গত, ৯-থেকে ১১ মার্চ পর্যন্ত যশোরের আরআরএফ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে পিস ফ্যসিলিটেটর ব্যাসিক গ্রুপের এই (পিএফবিটি) প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। সুস্থ্য ও শান্তি পূর্ণ পরিবেশ তৈরী এবং মানবিক সমাজ গঠনে মানুষের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু বর্তমান প্রেক্ষাপটে সমাজে মানুষের মাঝে সৌহার্দ্য পূর্ণ পরিবেশের অভাব রয়েছে । যার ফলে সমাজের মধ্যে বিভিন্ন প্রকার ক্ষোভ বিক্ষোভ এবং বিস্শৃংখলা লক্ষ্য করা যায়, বিশেষত রাজতৈকি, ধর্মীয় জাতিগত বিবেধ, দ্বন্দ্ব নিরসনকে এই প্রশিক্ষণে প্রাধান্য দেয়া হয়। উক্ত প্রশিক্ষণে ফ্যসিলিটেটর হিসাবে ছিলেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের জনাব তুহিন আফসারি, মো: মনিরুজ্জামান, এস.এম. রাজু জবেদ এবং উত্তম কুমার সরকার। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন এমআইপিএস প্রকল্পের ফিল্ড কোঅর্ডিনেটর জনাব রেজবিউল কবির, বরিশাল এবং মো: আশরাফুজ্জামান, যশোর। পিস ফ্যসিলিটেটর ব্যসিক ট্রেনিং (পিএফবিটি) প্রশিক্ষণে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধি, ধর্মিয় নেতা, শিক্ষক এবং সুশিল সমাজের গুরুত্বপূর্ন প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন। প্রশিক্ষণে সকলে শান্তি স্থাপন ও সহিংসতা নিরসনে অঙ্গিকারবদ্ধভাবে কাজ করতে যে সকল বিষয়সমূহ আলোচনা করা হয় তার মধ্যে অন্যতম ছিলো সুষ্ঠু রাজনৈতিক পরিবেশ, দ্বন্দ ও সহিংশতা নিরসন, নারিদের ক্ষমতায় ও অধিকার বাস্তবায়ন। এছাড়া রাজনৈতিক, ধর্মিয় ও জাতিগত সহিংসতা নিরসনে দল মত নির্বিশেষে পিএফজি কমিটির উদ্যোগে বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নেওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয় এবং বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া নির্ধারন করে বটিয়াঘাটা উপজেলাতে সকল জনগনকে সাথে নিয়ে আগামিতে কাজ করার ত্রৈমাসিক পরিকল্পনা গ্রহণ করে স্বপথ নেন।