২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / ১৬ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি / রাত ৪:৪৩

শরীরে আগুন ধরাবে যেসব রাতের পোশাক

শুধু হোটেল-রিসোর্টে নয়, বাড়িতে কিংবা বিশেষ দিনে চমক বজায় রাখুন আপনার রাতের পোশাকেও। তবে রাতের বেলা একটু আরামদায়ক পোশাক না পরলে হয় নাকি? নিজের প্রেমিকের উত্তেজনার পারদ বাড়াতে পরনে থাক এই সব রাত পোশাক। এগুলো যেমন আরামদায়ক, তেমনি আকর্ষণীয়। এই প্রতিবেদনে আপনাদের জন্য রইল আবেদনময়ী রাত পোশাকের হদিস।

প্রেমিকের সঙ্গে ছুটিতে ঘুরতে গেলে এই রাতে পোশাক উপযুক্ত। দুরন্ত নকশা। সিল্কের তৈরি। পরতে যেমন আরাম, উষ্ণতা ছড়াতেও জুড়ি মেলা ভার। আপনার দু’জনে নির্জনে বেড়ানোর সঙ্গী হোক এই রাতের পোশাক।শার্টিনের তৈরি চার রকমের রাত পোশাকের এই সম্ভার কিন্তু খুবই আবেদনময়ী। এই পোশাক পরলে আপনাকে দেখাবে লাস্যময়ী। স্বল্প আলোয় এই পোশাক পরে এসে প্রেমিকের সামনে দাঁড়ালেই তার শরীরে ওম ছড়াবে।

শার্টিনের তৈরি এই রাত পোশাক কিন্তু আপনাকে দেবে এক আভিজাত্যের ছোঁয়া। নিজেদের অন্তরঙ্গ সময়ে এই পোশাক পরলে নিমেষে বেড়ে যাবে আপনার আবেদন। উপরের আবরণটি শরীরে দিলে তো আর কথাই নেই।

গাউনের মতো দেখতে শার্টিনের এই রাত পোশাক আজকাল বেশ ট্রেন্ডিং। রাতে স্নিগ্ধ মোহময়ী হতে চাইলে এমন রাত পোশাক শরীর জড়ান। সুতির এই রাত পোশাক পরলে দেখতে যেমন সুন্দর লাগে, তেমনই এটি আরামদায়ক। গরমেও কিন্তু বেশ ভাল এই কাফতান।

ভেতরে ছোট একটি রাত পোশাক, তাও আবার এক রঙা। উপরে নকশা করা স্বচ্ছ জ্যাকেট। আলতো করে বাধা ফিতে দিয়ে। ভেতর থেকে উঁকি মারছে বক্ষ বিভাজিকা। প্রেমিকের সামনে ধরা দেবেন নাকি এমনভাবে?

নীল বা লাল রং যাই হোক না কেন,  প্রেমিকের শরীরে আগুন ধরাতে এসব পোশাক খুব খুব কাজ দেয়। ভিতরের গাউনের দুই পাশ এবং বক্ষ বিভাজিকার অংশটি স্বচ্ছ। তার উপরে শার্টিনের এক রঙা জ্যাকেটে আপনি হয়ে উঠবেন দুষ্টু মিষ্টি নায়িকা।