২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ / ১৮ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি / রাত ৩:২৬

সন্তানকে নিয়ে ফেরা হলো না পপির

সন্তানকে সাথে নিয়ে আর ঢাকায় স্বামীর ফেরা হলো না নাদিয়া আক্তার পপির (৩৫)। বিএনপি জোটের ডাকা হরতালে ট্রেনে দুর্বৃত্তদের দেওয়া আগুনে তিন বছরের সন্তান ইয়াসিনকে নিয়ে নির্মমভাবে হারাতে হলো প্রাণ। নৃশংতার বলি দুজনের মরদেহ এখন পড়ে আছে হাসপাতালের মর্গে। 

নাদিয়ার গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনায়। তার বাবার নাম ফজলুর রহমান ও স্বামীর নাম মিজানুর রহমান। পপি রাজধানী ঢাকার তেজগাঁও থানাধীন তেজকুনিপাড়ায় ভাড়া বাসায় থাকতেন স্বামীর সাথে। 

সম্প্রতি বাবার বাড়িতে শিশু সন্তানকে নিয়ে বেড়াতে যান পপি। ঢাকায় ফেরার উদ্দেশ্যে নেত্রকোণা থেকে ভোরে উঠেন মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনে। তবে সন্তানকে নিয়ে আর স্বামীর কাছে ফেরা হয়নি পপির।

আজ ভোর ৫টা ৪ মিনিটে তেজগাঁও রেলওয়ে স্টেশনের কাছে মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। সেই আগুনে শিশু সন্তানকে নিয়ে পুড়ে অঙ্গার হয়েছেন পপি। 

আগুনে মোট চারজন নিহত হয়েছেন। অপর দুজনের পরিচয় মেলেনি। 

এদিকে, ক্ষতিগ্রস্ত ট্রেনটি কমলাপুর রেলস্টেশনে নেওয়া হয়েছে। আগুনে ট্রেনের তিনটি বগি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পুড়ে যাওয়া বগিতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিল নৃশংসতার চিত্র।