২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / ১৯শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি / সন্ধ্যা ৭:০৬

সমাজে “শান্তি স্থাপন ও সহিংসতা নিরসনে —

যশোরে ( পিএফজি) কমিটির সক্ষমতা বৃদ্ধি প্রশিক্ষণ সম্পন্ন “
সাঈদ ইবনে হানিফ ঃ —
সুস্থ্য ও শান্তি পূর্ণ পরিবেশে বসবাস করা প্রতিটি মানুষের মৌলিক অধিকার কিন্ত বর্তমান সমাজে স্বার্থপরতা , হিংসা, হানাহানি ও সহিংস আচরনের পরিপ্রেক্ষিতে মানুষের মাঝে সৌহার্দ্য সম্প্রীতির পূর্ণ পরিবেশে বিগ্নিত হচ্ছে । যার কারণে সমাজের মধ্যে বিভিন্ন প্রকার ক্ষোভ বিক্ষোভ এবং বিস্শৃংখলা দেখা দিচ্ছে।
এমন সব ঘটনার পূনঃ বৃত্তি রোধে (পিস ফর ফ্যাসিলিটেটর) কুষ্টিয়া
উপজেলা গ্রুপের তিন দিনের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হয়েছে। গত ২০ এপ্রিল থেকে ২২ এপ্রিল পর্যন্ত যশোরের আরআরএফ ট্রেনিং সেন্টারে (পিএফবিটি)র এই ব্যাসিক ট্রেনিং অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রশিক্ষণে ফ্যসিলিটেটর হিসাবে ছিলেন, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের জনাব শশাঙ্ক রায়, তনুজা কামাল এবং এস,এম, রাজু জবেদ। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের কুষ্টিয়া উপজেলার সমন্বয়ক জনাব মো: শফিকুল ইসলাম এবং পিস এম্বাসেডর হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, যথাক্রমে বিএনপির জনাব মঞ্জুরুল ইসলাম ডাব্লু, শহর আওয়ামিলিগের মহিলা দলের সভাপতি জনাব বনানি বিশ্বাস এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট জনাম একরামুল ইসলাম এবং সুশিল সমাজের জনাব মো: আসাদুজ্জামান। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন এমআইপিএস প্রকল্পের ফিল্ড কোঅর্ডিনেটর জনাব মো: আশরাফুজ্জামান।

পিস ফ্যসিলিটেটর ব্যসিক ট্রেনিং (পিএফবিটি) প্রশিক্ষণে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধি, সাংবাদিক, ধর্মিয় নেতা, যুব শ্রেণী, শিক্ষক এবং সুশিল সমাজের গুরুত্বপূর্ন ৩০ জন প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। প্রশিক্ষণে সকলে শান্তি স্থাপন ও সহিংসতা নিরসনে অঙ্গিকারবদ্ধভাবে কাজ করতে যে সকল বিষয়সমূহ আলোচনা করা হয় তার মধ্যে অন্যতম ছিলো সুষ্ঠু রাজনৈতিক পরিবেশ, দ্বন্দ ও সহিংশতা নিরসন, নারিদের ক্ষমতায় ও অধিকার বাস্তবায়ন। এছাড়া রাজনৈতিক, ধর্মিয় ও জাতিগত সহিংসতা নিরসনে দল মত নির্বিশেষে পিএফজি কমিটির উদ্যোগে বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নেওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয় এবং বাস্তবায়ন প্রকৃয়া নির্ধারন করে কুষ্টিয়া উপজেলাতে সকল জনগনকে সাথে নিয়ে আগামিতে কাজ করার অঙ্গিকার গ্রহণ করা হয়।