২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ / ১৮ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি / রাত ৩:২২

সাকিবকেই ৩ ফরম্যাটে অধিনায়ক চায় বিসিবি

এক সময়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের কারণে জাতীয় দল থেকে ছুটি চাইতেন সাকিব আল হাসান। এবার ক্যারিয়ারের শেষ গগণে এসে সিদ্ধান্ত বদলেছেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটকে বিসর্জন দিয়ে জাতীয় দলে পূর্ণ মনোযোগ ঢেলে দেবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

সাকিবের এমন সিদ্ধান্তে বেশ খুশি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ফলে তিন ফরম্যাটের অধিনায়ক হিসেবে সাকিবকেই দেখতে চাইছে বোর্ড। তবে সাকিব যখন থাকবেন না কিংবা কোনো ফরম্যাট খেলবেন না; তখন অধিনায়ক হিসেবে প্রথম পছন্দ নাজমুল হোসেন শান্ত।

মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) হোম অব ক্রিকেট মিরপুরে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন ক্রিকেট অপারেশনস চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। সেখানে তার (জালাল) ভাষ্য, সাকিব এখন ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের চেয়ে দেশের ক্রিকেটে বেশি ফোকাস করবে, এটা অবশ্যই আনন্দের ব্যাপার। এটা আমাদের জন্য স্বস্তিদায়ক খবর। আমরা চাই সাকিব সব ফরম্যাটে দেশের জন্য খেলুক।

এদিকে ওয়ানডে বিশ্বকাপের আগে এক সাক্ষাৎকারে সাকিব জানিয়েছিলেন, অধিনায়ক হিসেবে আর বেশি চাপ নিতে চান না, এমনকি ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর ওয়ানডেতে আর অধিনায়কত্বও করবেন না।

অন্যদিকে বোর্ডের চাওয়া, সাকিব যেন তিন ফরম্যাটেই নেতৃত্ব দেন দলকে। জালাল ইউনুসের ভাষায়, পুনর্বিবেচনার ব্যাপারটা এখানে আসে না, এখনও সে আমাদের ক্যাপ্টেন। শান্তকে আমরা সামনের দুটা সিরিজের জন্য অধিনায়কত্ব দিয়েছি। আপনারা জানেন সাকিবকে দীর্ঘ সময়ের জন্য অধিনায়ক করা হয়েছে। এখনও সে তিন ফরম্যাটের অধিনায়ক। আমরা ধরে নিচ্ছি সাকিবই অধিনায়ক। সে ক্যাপ্টেন থাকবে কি থাকবে না, এমন কোনো প্রশ্ন উঠেনি। আমরা জানি এখনও সে ক্যাপ্টেন। আমরা চাই সে নিজেই ক্যাপ্টেন থাকুক।

ক্রিকেট অপারেশন্স প্রধানের মন্তব্য, একটা সময় আসবে সাকিব খেলা চালিয়ে যাবে না বা কোনো ফরম্যাট বন্ধ করে দিবে। আমাদের হাতে শান্ত আছে, যাকে আমরা সম্ভাব্য অধিনায়ক বলি। মিরাজ আছে। আমাদের কাছে মনে হয়, তারা বাংলাদেশকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়ার সামর্থ্য রাখে।