২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ / ১৮ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি / রাত ৩:২৫

সাতক্ষীরার কুখ্যাত মাদক সম্রাট, যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রাপ্ত পলাতক আসামী মো: হাসান গাজী (৩২)’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০, সিপিসি-৩, ফরিদপুর ক্যাম্প

১। র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই দেশের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে সব ধরণের অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেǎে অগ্রণী ভুমিকা পালন করে থাকে। জঙ্গী, সন্ত্রাসী, সংঘবদ্ধ অপরাধী, ছিনতাইকারী, মাদক ব্যবসায়ী এবং অপহরন, ধর্ষণ ও হত্যাসহ, বিভিন্ন মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতারে র‌্যাব নিয়মিত অভিযান চালিয়ে আসছে। গোয়েন্দা নজরদারী ও আভিযানিক কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় অপরাধ নিয়ন্ত্রণে র‌্যাব ইতোমধ্যে জনগণের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছে।

২। এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য ১২ ডিসেম্বর ২০২৩ খ্রিঃ তারিখ মাঝ রাতে আনুমানিক ১২.৪৫ ঘটিকায় র‌্যাব-৬, সিপিসি-১, সাতøীরা এবং র‌্যাব-১০, সিপিসি-৩, ফরিদপুর ক্যাম্প এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাতক্ষীরা জেলার সাতক্ষীরা সদর থানাধীন পুরাতন সাতক্ষীরা ঘোষ পাড়া কলোনি এলাকায় একটি অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত অভিযানে রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ ঘাট থানার মামলা নং-১৬, তারিখ-২৫/০৪/১২, জিআর নং-৭৪/১২, ধারাঃ ১৯৯০ সনের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯ (১) এর টেবিল ৩ (খ); মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ওয়ারেন্টভুক্ত দীর্ঘ এক যুগ ধরে পলাতক আসামী কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী মোঃ হাসান গাজী (৩২), পিতা- মৃত নুর আলী গাজী, সাং- পুরাতন সাতক্ষীরা, ঘোষপাড়া কলোনি, থানা- সাতক্ষীরা সদর, জেলা- সাতক্ষীরা’কে
গ্রেফতার করে।

৩। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে, গ্রেফতারকৃত আসামি উক্ত মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সহ একাধিক মামলায় তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সঠিক বলে স্বীকার করেছে। মোঃ হাসান গাজী বিজ্ঞ আদালত কর্তৃক রায় ঘোষনার পর
থেকে সাতক্ষীরা জেলার সাতক্ষীরা সদর থানাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় নিজের নাম পরিচয় গোপন করে এবং বিভিন্ন ছদ্মবেশ ধারণ করে সে জামিনে মুক্ত হয়ে দীর্ঘ এক যুগ ধরে দেশের বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপন করে ছিল।

৪। গ্রেফতারকৃত আসামিকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

কে এম শাইখ আকতার
লেঃ কমান্ডার
কোম্পানী অধিনায়ক র‌্যাব-১০, সিপিসি-৩, ফরিদপুর ক্যাম্প।
, ফরিদপুর।