১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / ৭ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি / রাত ৩:১৮

সাতক্ষীরায় জাতীয় পিঠা উৎসবের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী

আকরামুজ্জাম সদর প্রতিনিধ
সাতক্ষীরায় জাতীয় পিঠা উৎসবের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারী) রাতে সংস্কৃতি অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

তিন দিনব্যাপী এ পিঠা উৎসবের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ করেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির। তিনি বলেন, পিঠা উৎসব আবহমান বাংলার ঐতিহ্য। বাংলাদেশের সংস্কৃতি আর ঐতিহ্যের অন্যতম অংশ। এ উৎসবের মাধ্যমে ভ্রাতৃত্ববন্ধন তৈরি হয়। প্রাচীনকাল থেকেই অঞ্চলভেদে বিভিন্ন রকম পিঠা তৈরি হয়ে আসছে। তবে ফাস্ট ফুডের প্রভাবে ধীরে ধীরে পিঠা বিলুপ্তের পথে। পিঠা উৎসব বাঙালির ঐতিহ্যের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়। প্রাচীন ঐতিহ্য ধরে রাখতে পিঠা উৎসব শুধু বাণিজ্যিকভাবে নয়, শিল্পের জায়গায় নিয়ে যেতে হবে। শুধু শহরে নয় এই উৎসব গ্রামাঞ্চলেও পৌঁছে দিতে হবে।

জেলা কালচারাল অফিসার ফাইজা হোসেন অন্বেষা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শেখ মঈনুল ইসলাম মঈন, জেলা প্রশাসক পত্নী জেসমিন জাহান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের জেলার সভাপতি বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী আবু আফ্ফান রোজবাবু, সাধারণ সম্পাদক শামীমা পারভীন রত্না, সাবেক মহিলা কাউন্সিলর ফারহা দীবা খান সাথী, বর্ণমালা একাডেমির পরিচালক নাহিদা পারভীন পান্না, সাতক্ষীরা অনলাইন মার্কেট এর পরিচালক মো: ইব্রাহিম খলিল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অধিকারীসহ ৮টি স্টল প্রতিনিধিদের মাঝে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদপত্র বিতরণ করা হয়।
সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক মোসফিকুর রহমান মিল্টন।