২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ / ১৮ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি / রাত ১:২২

সিলেটে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচারণা শুরু করতে সিলেটে পৌঁছেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে বুধবার (২০শে ডিসেম্বর) ঢাকা থেকে উড়োজাহাজে সিলেটের উদ্দেশ্যে রওনা হন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। সকাল সাড়ে ১১টার পর তিনি সিলেটে পৌঁছান। এরপর হযরত শাহজালাল ও শাহপরান রহমতুল্লাহর মাজার জিয়ারত করবেন প্রধানমন্ত্রী। 

দুপুরের পর সিলেট নগরীর প্রাণকেন্দ্রে সরকারি আলীয়া মাদ্রাসা মাঠে নির্বাচনী জনসভায় যোগ দেবেন শেখ হাসিনা। নৌকার আদলে তৈরি করা হয়েছে জনসভা মঞ্চ। নির্বাচনের আগে দলীয় প্রধানের এই সফরকে কেন্দ্র করে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে। 

জনসভা সফল করতে এরইমধ্যে সার্বিক প্রস্তুতি নিয়েছে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ। প্রধানমন্ত্রীর এ সফরকে ঘিরে ইতোমধ্যে সিলেটে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করতে নতুন সেজেছে সিলেট নগরী। জাতির পিতার কন্যাকে বরণ করতে সিলেট নগরীর গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট ও রাস্তাঘাটসহ পুরো নগরীকে নতুন সাজে সজ্জিত করা হয়েছে।

অন্যদিকে জনসভায় বিপুল মানুষের উপস্থিতি ঘটাতে কাজ করছেন স্থানীয় নেতারা। নগরী জুড়ে বিজার করছে উৎসবের আমেজ। নেতারা জানান, সিলেট বিভাগের ৪টি জেলা থেকে বিপুল সংখ্যক মানুষের উপস্থিতি ঘটবে জনসভায়। আওয়ামী লীগের জনসভার সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও দলের স্বেচ্ছাসেবকরা।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দের পর আজ বুধবার (২০ ডিসেম্বর) সিলেট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে দলের নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এরপর বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) রংপুর বিভাগের পঞ্চগড় ও লালমনিরহাট, রাজশাহী বিভাগের নাটোর ও পাবনা এবং চট্টগ্রাম বিভাগের খাগড়াছড়িতে ভার্চুযালি নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখবেন প্রধানমন্ত্রী।

এছাড়া আগামী ২৯ ডিসেম্বর, শুক্রবার বরিশাল জেলা সদরে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর। এরপর, ৩০ ডিসেম্বর, শনিবার গোপালগঞ্জ-৩ নির্বাচনী এলাকায় (টুঙ্গিপাড়া ও কোটালীপাড়া) এবং মাদারীপুর-৩ নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখবেন তিনি।