২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / ১৬ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি / রাত ৩:০৩

৫০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সবাই ফেল

২০২২ সালে অনুষ্ঠিত এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। দেশে এবার পাশের গড় ৮৫ দশমিক ৯৫ শতাংশ। এ বছর এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ৫০টি প্রতিষ্ঠানে শতভাগ শিক্ষার্থী ফেল করেছেন। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে।

বুধবার (৮ই ফেব্রুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে সংবাদ সম্মেলনে ফলাফলের বিস্তারিত তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

এতে জানানো হয়, ২০২২ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় মোট ৯ হাজার ১৩৯টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। এরমধ্যে ১ হাজার ৩৩০ টি প্রতিষ্ঠানে শতভাগ পরীক্ষার্থী পাস করলেও ৫০টি বিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষার্থী পাস করতে পারেননি। এর মধ্যে দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডে সবচেয়ে বেশি ফেল করা প্রতিষ্ঠান রয়েছে ১৩টি। এছাড়া রাজশাহীতে ৯টি, ঢাকায় ৮টি, যশোরে ৬টি, কুমিল্লায় ৫টি এবং ময়মনসিংহে ৩টি প্রতিষ্ঠানে সবাই ফেল করেছেন।

এছাড়া চারটি মাদরাসা ও দুইটি টেকনিক্যাল প্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থী ফেল করেছেন।

এ ব্যাপারে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলছেন, এবার সব বিষয়ে পরীক্ষা হওয়ায় পাশের হার কমেছে, বেড়েছে শতভাগ ফেল করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যাও।

শতভাগ ফেল করা প্রতিষ্ঠানের বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া কথাও জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।