মাঙ্কিপক্সে ভারতে প্রথম মৃত্যু, বাড়ছে আতঙ্ক


এম.এ.টি রিপন প্রকাশের সময় : অগাস্ট ১, ২০২২, ২:৫১ অপরাহ্ন /
মাঙ্কিপক্সে ভারতে প্রথম মৃত্যু, বাড়ছে আতঙ্ক

মাঙ্কিপক্স আগেই থাবা বসিয়েছে ভারতে। এবার এই রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হলো দেশটির কেরালা রাজ্যের এক যুবকের। জানা গেছে, বিদেশে থাকাকালীন না কি তার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছিল। এটাই সম্ভবত ভারতে মাঙ্কিপক্সে প্রথম মৃত্যু। আর আফ্রিকার বাইরে চতুর্থ।

কেরালার স্বাস্থ্যমন্ত্রী বীনা জর্জ জানিয়েছেন, শনিবার (৩১ জুলাই) প্রাণ হারান ত্রিশূরের ২২ বছরের যুবক। মাঙ্কিপক্সের কোনো লক্ষণও ছিল না তার। শনিবারই বিদেশ থেকে তার আত্মীয়দের হাতে মাঙ্কিপক্স পরীক্ষার রিপোর্ট এসেছে। সেই রিপোর্টে জানা গেছে, তার রিপোর্ট ছিল পজিটিভ। গত ২২ জুলাই সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ওই যুবক কেরালায় ফিরেছিলেন। তারপর কয়েকদিন ধরেই হাসপাতালে ছিলেন তিনি। কেরালার স্বাস্থ্য দফতর তার শরীরের নমুনা পরীক্ষা করে।  

বিদেশেও ওই যুবকের স্বাস্থ্য পরীক্ষা হয়েছিল। তার শরীরের নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল। সেখানে তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে, তবে, ততদিনে তিনি কেরালায় চলে এসেছিলেন। 

মন্ত্রীর বক্তব্য- শরীরে এনসেফ্যালাইটিস এবং ক্লান্তির কারণে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মাঙ্কিপক্সে মৃত্যুর ঘটনা বেশ কম। সেই জন্য মৃত্যু কীভাবে হলো, তা জানতে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। 

২৬ জুলাই জ্বর এসেছিল ওই যুবকের। তারপরই স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে অন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেই হাসপাতালে আবার তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। আমিরাত থেকে কেরালায় আসার আগে তিনি একটি স্বাস্থ্য পরীক্ষা করিয়েছিলেন। ওই পরীক্ষাতেই তার মাঙ্কিপক্স ধরা পড়েছে।

মাঙ্কিপক্সে মৃত্যুর ক্ষেত্রে শেষকৃত্যে কিছু বিধিনিষেধ আছে। সেই নিয়মকানুন মেনেই তাকে কবর দেওয়া হয়েছে। এই ক’দিন ওই যুবকের সঙ্গে যাদের খুব কাছ থেকে যোগাযোগ হয়েছিল, তাদের সবাইকেই পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। 

ভারতে প্রথম এই কেরালা রাজ্যেই হানা দিয়েছিল মাঙ্কিপক্স। এখনও পর্যন্ত দেশটিতে চারজন আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। যার মধ্যে তিনজনই কেরালার।