কানাডাকে হারিয়ে টিকে থাকলো ক্রোয়েশিয়া


Md Jasim Mollah প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২৮, ২০২২, ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ /
কানাডাকে হারিয়ে টিকে থাকলো ক্রোয়েশিয়া

কানাডাকে হারিয়ে কাতার বিশ্বকাপের শেষ ষোলোর দৌড়ে ভালোভাবে টিকে থাকলো বর্তমান রানার্স-আপ ক্রোয়েশিয়া।

‘এফ’ গ্রুপে রোববার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে স্ট্রাইকার আন্দ্রে ক্রামারিচের জোড়া গোলে ক্রোয়েশিয়া ৪-১ গোলে হারিয়েছে কানাডাকে। নিজেদের প্রথম ম্যাচে মরক্কোর সাথে গোলশূন্য ড্র করেছিলো ক্রোয়েশিয়া।

রোববারের ম্যাচ শেষে গ্র“পে ২টি করে ম্যাচ শেষে ৪ করে পয়েন্ট ক্রোয়েশিয়া ও মরক্কোর। গোল গড়ে এগিয়ে শীর্ষে ক্রোয়েশিয়া। ৩ পয়েন্ট আছে বেলজিয়ামের। প্রথম দুই ম্যাচ হেরে এখনও পয়েন্টের দেখা পায়নি কানাডা। এতে শেষ ষোলোর দৌড়ে টিকে আছে ক্রোয়েশিয়া, মরক্কো ও বেলজিয়াম তিন দলই।  

দোহার খালিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচের শুরুতেই ক্রোয়েশিয়াকে চমকে দেয় কানাডা। ম্যাচের ৬৮ সেকেন্ডে গোল পেয়ে যায় কানাডা। ডান প্রান্ত দিয়ে টাওন বুখানানের ক্রসে হেড দিয়ে গোল করেন আক্রমনভাগের আরেক খেলোয়াড় আলফনসো ডেভিস।

বিশ্বকাপ ইতিহাসে প্রথম গোলের দেখা পেল দ্বিতীয়বারের মত বিশ্বমঞ্চে খেলতে নামা কানাডা। ১৯৮৬ সালে প্রথমবার বিশ্বকাপে খেললেও তিন ম্যাচে কোন গোল করতে পারেনি তারা। উল্টো ৫ গোল হজম করেছে। এবারের আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বেলজিয়ামের কাছে ১-০ গোলে ম্যাচ হারে কানাডা।

শুরুতে পাওয়া লিড ধরে রাখতে মরিয়া ছিলো কানাডা। অন্য দিকে  ম্যাচে সমতা আনতে চেষ্টারত  ক্রোয়েশিয়া ৩৬ মিনিটে গোল পেয়ে যায়। স্ট্রাকার ইভান পেরিসিসের কাছ থেকে বল পেয়ে বাঁ-পায়ের কোনাকুনি শটে গোল আদায় করে নেন আরেক ফরোয়ার্ড খেলোয়াগ আন্দ্রে ক্রামারিচ।

সমতা পেয়েও আক্রমণ অব্যাহত রাখে ক্রোয়েশিয়া। ৪৪ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করে ফেলে তারা। ডিফেন্ডার জোসিপ জুরানোভিচের বাড়ানো বল নিয়ে কানাডার বক্সের ভেতর ঢুকে গোলে শট নিয়ে স্কোরলাইন ২-১ করেন স্ট্রাইকার মার্কো লিভায়া। এই লিড নিয়ে ম্যাচের বিরতিতে যায় ক্রোয়েশিয়া। প্রথমার্ধে ৫৪ শতাংশ বল ছিলো ক্রোয়েশিয়ার দখলে। বাকী ৪৬ শতাংশ কানাডার দখলে।

পিছিয়ে থেকেও দ্বিতীয়ার্ধে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে লড়াইয়ে চালিয়ে গেছে কানাডা। আক্রমনের চেষ্টা অব্যাহত ছিলো দু’দলেরই। ৭০ মিনিটে গোলের ব্যবধান ৩-১ করে ফেলে ক্রোয়েশিয়া। পেরিসিসের ক্রসে বাঁ-পায়ের শটে কানাডার জালে দ্বিতীয়বারের মত বল জড়ান প্রথম গোলের মালিক ক্রামারিচ।

তৃতীয় গোল হজমের পর আক্রমণের ধার বাড়িয়ে দেয় কানাডা। কিন্তু ক্রোয়েশিয়ার ডিফেন্স ভেদ করতে পারছিলো না। শেষ পর্যন্ত  আর গোলের দেখা পায়নি কানাডা। কিন্তু ইনজুরি সময়ের চতুর্থ মিনিটে কানাডার জালে এক হালি গোল পূর্ণ করে ক্রোয়েশিয়া। গোলটি করেন মিডফিল্ডার লোভরো মাজের। শেষ পর্যন্ত বড় জয়ে মাঠে ছাড়ে ক্রোয়েশিয়া।

আগামী পহেলা ডিসেম্বর গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে মরক্কোর বিপক্ষে কানাডা ও বেলজিয়ামের সাথে খেলবে ক্রোয়েশিয়া।