জুনে ভারত থেকে পাইপলাইনে ডিজেল আসছে: বিদ্যুৎপ্রতিমন্ত্রী


এম.এ.টি রিপন প্রকাশের সময় : জানুয়ারি ১৭, ২০২৩, ১১:০২ পূর্বাহ্ণ /
জুনে ভারত থেকে পাইপলাইনে ডিজেল আসছে: বিদ্যুৎপ্রতিমন্ত্রী

আগামী জুন মাসে ভারত থেকে পরীক্ষামূলকভাবে পাইপলাইনের মাধ্যমে ডিজেল আমদানি শুরু হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

সোমবার সংসদের বৈঠকে প্রশ্নোত্তরে তিনি এ আশা প্রকাশ করেন। এর আগে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হলে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উপস্থাপন করা হয়।

সরকারি দলের এম আব্দুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, পাইপ লাইনের মাধ্যমে ভারত থেকে ডিজেল আমদানির জন্য ভারত অংশে ৫ কিলোমিটার প্রায় ১৩১ দশমিক ৫ কি.মি ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপলাইন (আইবিএফপিএল) নির্মাণ করা হয়েছে। এই পাইপলাইনের মাধ্যমে ডিজেল আমদানির প্রি-কমিশনিং কার্যক্রম চলমান রয়েছে। আগামী জুন মাসে ওই পাইপ-লাইনের মাধ্যমে ডিজেল আমদানির কমিশনিং তথা পরীক্ষামূলকভাবে ডিজেল আমদানি শুরু হবে বলে আশা করা যায়।

নুরুন্নবী চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী গত বছরের জুন মাসের হিসাব তুলে ধরে বলেন, বর্তমানে (জুন ২০২২) দেশে মজুদ গ্যাসের পরিমাণ ৯ দশমিক শূন্য ৬ ট্রিলিয়ন ঘনফুট। মজুদ গ্যাস দিয়ে প্রায় ১১ বছর দেশের চাহিদা মেটানো সম্ভব হবে।

নসরুল হামিদ বলেন, সর্বশেষ (১ জুলাই, ২০২২) প্রাক্কলন অনুযায়ী দেশে মোট উত্তোলনযোগ্য প্রমাণিত ও সম্ভাব্য মজুদ ২৮ দশমিক ৫৯ টিসিএফ। গ্যাসক্ষেত্রগুলো হতে দৈনিক গড়ে প্রায় ২২৫০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উৎপাদন হচ্ছে বিবেচনায় অবশিষ্ট মজুদকৃত গ্যাস দ্বারা প্রায় ১১ বছর বাংলাদেশের চাহিদা মেটানো সম্ভব হবে। নতুন গ্যাসক্ষেত্র অনুসন্ধানের বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

আগামী গ্রীষ্মকাল ও রমজান মাসে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বিদ্যুৎ বিভাগ অতীতের অভিজ্ঞতায় নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে উল্লেখ করে নসরুল হামিদ বলেন, এ বছর রমজান মাস, গ্রীষ্মকাল ও সেচ মৌসুম একই সময়ে হওয়ায় বিদ্যুতের চাহিদা অত্যধিক বৃদ্ধি পাবে। বৈশ্বিক জ্বালানি সংকটের কারণে পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও বিদ্যুত খাতকে নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হচ্ছে। বিদ্যমান বাস্তবতায় সরকার সকল বিদ্যুৎ গ্রাহককে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

মামুনুর রশীদ কিরণের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, বর্তমানে দেশে পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহক সংখ্যা তিন কোটি ৪৩ লাখ ৯৪ হাজার ৭৭৫ জন।